বাড়ি খননের সময় পাওয়া ‘গুপ্তধন’ খুঁজছে পুলিশ

ঝালকাঠি পৌর শহরে পুরাতন বাড়ি খননের সময় মিলেছে গুপ্তধন। তবে তা লুটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এমন খবরে গুপ্তধনের সন্ধানে মাঠে নেমেছে পুলিশ। এরই মধ্যে বাবুল হাওলাদার নামের সাবেক এক ইউপি সদস্যকে আটক করা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নারায়ণ পাল নামের এক ব্যক্তির কাছ বাড়ি কিনেন ঝালকাঠি পৌরসভার মেয়র মো. লিয়াকত আলী তালুকদার। তার ভবন ভেঙে মাটি খননের সময় একটি কলস বেরিয়ে আসে। সেই কলসের মধ্যে রুপা ও মুদ্রা পাওয়া যায়। এসব রুপা-মুদ্রা আশপাশের মানুষ কুড়িয়ে নেন।

খবর পেয়ে বাবুল হাওলাদার, আফজাল হোসেন ও শাহিন নামের তিন ব্যক্তি স্থানীয়দের কাছ থেকে কুড়িয়ে পাওয়া গুপ্তধন নিয়ে যান। এদিকে গুপ্তধনের একটি রুপার পয়সার নমুনা পাওয়া গেছে। এ পয়সার মধ্যে ১৯০৭ সাল লেখা রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী নাজমা বেগম বলেন, ‘মাটি খননের সময় আমরা রূপার পয়সা পেয়েছি। এরপর আফজাল নামের এক লোকের কাছে দিয়েছি।’

ঝালকাঠি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খলিলুর রহমান বলেন, গুপ্তধন পাওয়ার একটি ঘটনা আমরা শুনেছি। এ ঘটনায় বাবুল হাওলাদার নামের এক ব্যক্তিকে আটকও করেছি। তার কাছে চারটি মুদ্রা পাওয়া গেছে। বাকিগুলোর সন্ধানে কাজ করছে পুলিশ।

Share this post

PinIt
scroll to top