‘খালেদার নড়াচড়ায় অসুবিধার কথা চিন্তা করে কারাগারে কোর্ট’

খালেদা জিয়ার জন্য কারাগারে আদালত স্থাপন প্রসঙ্গে অাওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়ার নড়াচড়া করতে অসুবিধা হচ্ছে। অাদালতে মুভমেন্ট করতে তার সমস্যা হয়। তার সমস্যা ও নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে জেলখানায় অাদালত বসানো হয়েছে।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়া অাদালতে গেলেন কিন্তু তার অাইনজীবী প্যানেল গেলেন না। এ থেকে বোঝা যায় যে অাইনজীবীরা জানেন যে খালেদা জিয়া দোষী, তার পক্ষে লড়ে কোনো লাভ হবে না।

বৃহস্পতিবার রাতে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে অাওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় সূচনা বক্তব্যে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। সভায় অাওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ কমিটির অধিকাংশ নেতা উপস্থিত ছিলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি বলছে যে জেলখানায় কোর্ট বসানো সংবিধানবিরোধী। দুঃখজনক যে, যারা অবৈধভাবে ক্ষমতায় এসেছিল, বন্দুকের নল ব্যাবহার করে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করে, তাদের কাছ থেকে অাজ সংবিধান শিখতে হয়।

বিএনপিকে পাল্টা প্রশ্ন করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জিয়াউর রহমান যখন কারাগারে কোর্ট স্থাপন করে কর্নেল তাহেরের বিচার করেছিলেন তখন সে বিচার কি সংবিধান অনুযায়ী ছিল না? খালেদা জিয়া এবং অামি যখন সাবজেলে ছিলাম তখন সাবজেলে কোর্ট বসানো হয়েছিল এবং অামরা দুজনই সেখানে হাজির হয়েছিলাম। সে কোর্ট কি সংবিধান লংঘন করেছে?

তিনি বলেন, প্রজ্ঞাপন জারি করে যে কোনো স্থানে কোর্ট বসানো যায়। এখানে হিংসার কি অাছে। খালেদা জিয়া এতিমের টাকা মেরে খেয়েছেন, তাই তার বিচার হচ্ছে। তাদের (বিএনপি) কেউ কেউ বলছেন, টাকা ব্যাংকে অাছে। টাকা যদি থাকে, তাহলে সেটা এতিমদের হাতে যায়নি কেন। জিয়া অরফানেজ কোথায়? তার কি কোনো ঠিকানা অাছে?

Comments

comments

শেয়ার করুন

PinIt