তিনশ’ আসনে ৩০৫৬ মনোনয়নপত্র জমা

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য ৩০৫৬ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। অনলাইনে জমা দিয়েছেন ৩৯ জন। তবে অনলাইনে মাত্র ২৩টি সঠিকভাবে জমা পড়েছে। বাকি ১৬টির মধ্যে ৮টির কাগজপত্র ঠিক নেই এবং ৮টি সম্পূর্ণ খালি জমা পড়েছে।

এবারই প্রথম অনলাইনে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার ব্যবস্থা করেছিল নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বুধবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত সারাদেশের রির্টানিং কর্মকর্তার কাছে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ সময় ছিল।

পরে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ প্রেস বিফ্রিংয়ে মনোনয়নপত্র জমার হিসাব জানান।

তিনি জানান, ৩০৫৬ মনোনয়নপত্রের মধ্যে রংপুর বিভাগে ৩৬১টি, রাজশাহীতে ৩৫৩, খুলনায় ৩৫১, বরিশাল ১৮২, ময়মনসিংহে ২৩৬, ঢাকায় ৭০৮, সিলেটে ১৭৭ ও চট্টগ্রামে ৬৮৮টি মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে। সর্বোচ্চ মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে ঢাকা-৮ আসনে ২২ জন। আর সর্বনিম্ন মনোনয়ন পড়েছে মাগুরা-২ আসনে ৪ জন।

ইসি সচিব বলেন, মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় কোথাও কোনো আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ পাওয়া যায়নি। কোন দল থেকে কত জন, কোন জোট বা স্বতন্ত্র প্রার্থী কত জন তা আগামীকাল বৃহস্পতিবার জানা যাবে।

এবার নির্বাচন সামনে রেখে ইসিতে নিবন্ধিত দলগুলোর মধ্যে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ১১ দল আর মহাজোটের ১১ দল জোটবন্ধ হয়ে নির্বাচন করছে। করে নির্বাচন কমিশন যে তালিকা দিয়েছে, তাতে দেশের ৩৯টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের মধ্যে ২২টিই নির্বাচন করতে চায় নৌকা অথবা ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে। এর মধ্যে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন জোটের ১১টি দল ‘নৌকা’প্রতীক এবং বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোটের ১১টি দল ‘ধানের শীষ’ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার কথা জানিয়েছে।

এর মধ্যে নিবন্ধিত দলের সংখ্যা আটটি এগুলো হলো—আওয়ামী লীগ, জাসদ, ওয়ার্কার্স পার্টি, সাম্যবাদী দল, গণতন্ত্রী পার্টি, ন্যাশনাল আওয়ামী পার্ট-ন্যাপ, তরিকত ফেডারেশন ও জাতীয় পার্টি-জেপি।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সই করা চিঠিতে জানানো হয়েছে বিএনপি, এলডিপি, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি-বিজেপি, খেলাফত মজলিশ, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপা, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ, গণফোরাম, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করবে।

এসব মনোনয়নপত্র বাছাই শুরু হবে ২ ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহার ৯ ডিসেম্বর; আর প্রতীক বরাদ্দ হবে ১০ ডিসেম্বর। আর ভোট ৩০ ডিসেম্বর।

Comments

comments

শেয়ার করুন

PinIt